ত্যাগের পরেই সফলতা আসে | জীবনে সফল হতে চাইলে সবার আগে ত্যাগ করুন | ত্যাগ কাকে বলে ? - বিডি-এক্সপ্রেস.টপ

 আশাকরি মন দিয়ে পড়বেন এবং বুঝবেন কারন এখানে জীবনের খুব গুরুত্বপূর্ণ কথা গুলো নিয়ে লেখা হয়েছে। 
অন্তরের গল্প || বিডি-এক্সপ্রেস.টপ

অনুপ্রেরণার গল্প 


সব সময় একটা কথা মনে রাখবেন জীবনে আপনার যেই স্বপ্ন আছে, যেই লক্ষ্য আছে। সেটা পূরণ করতে হলে আপনাকে কিছু ত্যাগ করতে হবে। ত্যাগ ছাড়া কিছু সম্ভব না। অনেকে আছেন ত্যাগ মানে কি সেটাই বোঝেনা তারা মনে করে ইচ্ছার বিরুদ্ধে কাজ না করাই হোল ত্যাগ। মনে করুন আপনি বাইক কিনতে পারেন কিন্তু কিনছেন না এটা হলো ত্যাগ, কিন্তু আমি এটির কথাও বলছি না আমি বলছি আপনার ক্যারিয়ার গড়তে যে ত্যাগ করতে হবে সেটির কথা। আপনি পৃথিবীর বড় বড় ধনী ব্যাক্তি খেলোয়াড় বা প্রতিষ্ঠিত কোন মানুষের জীবনী দেখতে পারেন এবং আপনি তাদের জীবনে ত্যাগ দেখতে পারবেন। 


অনুপ্রেরণার গল্প 

$ads={1}

প্রতিটা মানুষ বড় হতে চায়, বড় কিছু করতে চায় কিন্তু এই সমস্ত কিছু করার জন্য তারা একটা জিনিস করতে পারে না। সেটিই হলো ত্যাগ! নিজের স্বপ্ন পুরনের জন্য যদি আপনাকে খুব সকালে ঘুম থেকে উঠতে হয় আর আপনি তাই করলেন এটাই হলো ত্যাগ। আপনাকে কোন কাজ বা কোন জ্ঞান অর্জনের জন্য অনেক দূরে জেতে হবে আপনি গেলেন এটাই ত্যাগ। কোন বিশেষ দরকার ছাড়া ফেসবুক ইউটিউব ব্যবহার করা যাবে না আপনি এটাই করলেন এটাই হলো ত্যাগ। বন্ধুরা সবাই পার্টি করছে আপনি না গিয়ে নিজের কাজ করলেন এটাই ত্যাগ, প্রয়জনে নিজের বন্ধুবান্ধব, গার্লফ্রেন্ড-বয়ফ্রেন্ড ছেড়ে দেওয়া এটাই হলো ত্যাগ।


অনুপ্রেরণার গল্প 


আরও পড়ুন; মার্ক জাকারবার্গ এর সফলতার গল্প

অনুপ্রেরণার গল্প 


 আসলে ১৮ থেকে ২৫ বছর বয়স হলো মানুষের সব থেকে রোমান্টিক সময় আমরা সবাই জানি আমাদের বেশির ভাগ সময় এই সময়টিতে কোথায় কোথায় নষ্ট হয়। এই সময় আমাদের অনেক বন্ধু থাকে এখন যদি আমি সোশ্যাল সাইটে কাউকে উত্তর না দিয়ে থাকি তাহলে কিছুই যায় আসবে না। কিন্তু ১ বছর ২ বছর ৪ বছর পরে আপনি কোথায় থাকবেন সেটা ঠিক হবে আপনার আজকের কর্মের উপরে। কারন এখন আপনি যততা ত্যাগ করবেন কিছু দিন পরে ততটাই সুখের জীবন আপনি পাবেন।


অনুপ্রেরণার গল্প 


আরও পড়ুন; বিল গেসটের সফলতার গল্প

 আপনি কি জানেন আমাদের জীবনের ৯০% কাজের উপরে আমাদের কন্ট্রোল থাকে।



 জীবনে যেটাই করতে চান বা পাওয়ার ইচ্ছা করেন সেটি যদি আপনি যদি না পেয়ে থাকেন। বা না করতে পারেন তাহলে প্লিজ কোন ওজুহাত দিবেন না। যে সমাজ ভালো ছিলো না, সরকার ভালো ছিলো না, আমার টাকা ছিলো না বাবা মা ভালো ছিলো না, আমার টাকা ছিলো না ইত্যাদি।


অনুপ্রেরণার গল্প 


 শুধু মাত্র আপনি মনোযোগ দিন আপনার লক্ষ্যের দিকে এবং নিজের উপরে বিশ্বাস রেখে কাজ করতে থাকেন। ভাবুন কেন আপনি এটা করতে চান? আপনি যেখানেই থাকেন যে অবস্থায় থাকেন সেটা কোন বিষয় না আপনি যেটা চান তার জন্য আপনি না লড়লে কে লড়বে? 

অনুপ্রেরণার গল্প 

$ads={2}

জীবন মানে হলো আপনি বার বার হেরে গিয়ে কতবার উঠে দাঁড়াচ্ছেন সেটা।

নিজের প্রতি একটু রাগ তৈরি করুন। নিজেকে নিজেই প্রশ্ন করুন। কেন আমি এটা পারব না?  প্রতিজ্ঞা করুন যে,আমাকে  যে করেই হোক আমাকে এটা করতেই হবে। কি এমন স্বপ্ন যেটা পূরণ হবে না? 

স্বপ্ন সত্যি হবে, পূরণ হবে, আগে চেষ্টা তো করুন। এই বয়সটিতে মজা কম করে চিন্তা বেশি করেন। তাহলে, বেঁচে থাকার জন্য বাকিটা জীবন মজা করতে পারবেন। তাই, আজই সিদ্ধান্ত নিন স্বপ্ন পূরণ করতে যা কিছু ত্যাগ করতে হয় আপনি করবেন।

অনুপ্রেরণার গল্প 


 কারন..? 


আপনি স্বীকার করেন বা না করেন জীবন মানেই হলো ত্যাগ, পরিশ্রম, আর মৃত্যু হলো একমাত্র বিশ্রাম। তাই জীবনে কিছু করতে হলে আপনাকে অনেক কিছু ত্যাগ করতে হবে। 


অনুপ্রেরণার গল্প 
Previous Post
Next Post

Hey, I'm Safayat Antor and I am a creative content creator. This is my Blog site.I always try to write something new, Which no one wrote before. Because everyone always try to learn something new. facebook blogger

0 Comments:

⚠️ এমন কোনো মন্তব্য করবেন না যাতে, অন্য কোনো ব্যাক্তির সমস্যা হয়।